ছড়া সাহিত্য

আজব চশমা – নুপুর সাহা

সিরিজঃ চশমা
সম্পাদনাঃ শোভন সেনগুপ্ত

মিরাকেল ! অবশেষে আজব
চশমা এলো হাতে।
প্রফেসর তৈরি করেছেন
তা, কোনো এক রাতে।

মুখোশের ভিতর যেমন-
থাকে মুখটি লুকোনো,
চশমার ভিতর তেমনি
গূঢ় দৃষ্টি ঢোকানো।

চশমার পুরু কাঁচে মনের
গোপন ছবি হয় স্পষ্ট।
চোখে এঁটে চশমা দেখা
যায় ভেতরটা কার কতো নষ্ট !

কে যে কতো হাবিজাবি
আঁকছে দিবারাত্র!
কার ঘটে কতো বুদ্ধি,
বোঝা যায় কে কেমন পাত্র।

হিসাবের খাতা খুলে শুধু
কষে অঙ্ক, কোন সে অজ্ঞ?
কেই বা ছক কষে ফন্দী আঁটে,
নিজেকে ভাবে বিজ্ঞ!

চশমায় ধরা পড়ে চোর
জালিয়াত থেকে শত্রু।
চশমায় দেখা মেলে
কে বা পর – কে আসল মিত্র।

আজকের দুনিয়ায় মিলছে
যে চশমা বিস্তর‌,
ভালো জহুরীর চোখ না মেলায়
শুধু দৃশ্যান্তর দুস্তর।

আরও পড়ুন >> এ কেমন দিন! চশমা হীন!

Facebook Comments

You Might Also Like