চলচ্চিত্র বিনোদন

আবার এসেছে শবর !! বিস্ময় না বিরক্তি, কি নিয়ে ?

গের শতকে রাজেশ খান্না-র স্টারডম দেখেছেন বা শুনেছেন। এই প্রজন্মের দর্শকেরা পেয়েছেন শাহরুখ খান বা সলমন খান। প্রথম সারির বাণিজ্যিক বাংলা ছবির দর্শকরা পেয়েছেন বুম্বা দা, দেব, জিৎ – যাদের বড় পর্দায় এন্ট্রি মানেই দর্শকেরা হাততালিতে, আনন্দ চিৎকারে ফেটে পড়েছেন, পড়ছেন। এবার ‘শবর’ শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের বড়পর্দায় এন্ট্রি, হাততালি চিৎকারে দর্শকেরা যেভাবে উৎফুল্ল, অভাবনীয় মুহূর্তের সাক্ষী হলাম। ঠিকই ধরেছেন, কথা বলছি সদ্য রিলিজ অরিন্দম শীল পরিচালিত গোয়েন্দা শবর সিরিজের তৃতীয় প্রযোজনা ‘আসছে আবার শবর’ মুভির। শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের ‘প্রজাপতির মৃত্যু ও পুনর্জন্ম’ কাহিনীর চলচ্চিত্র রূপ। স্বাভাবিকভাবেই পদ্মনাভ দাশগুপ্ত এবং পরিচালক স্বনির্মিত চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে সামান্য সংযোজন এবং ক্ষীণ পরিবর্তন করেছেন।

সরাসরি মুভির কথা বলতে গেলে বলব, শুধু থ্রিলার বলা যাবে না, বরং ড্রামাটিক ভাব এবার অনেকটাই বেশী। গোয়েন্দা রহস্য রোমাঞ্চ মুভির প্রথমার্ধ একদম যথাযথ, সম্পর্ক ধারাবাহিক খুন রেষারেষি সব তালগোল পাকানোর পর যেই রহস্যের সমাধানের গন্ধ আসতে শুরু করেছে অমনি গল্পের মোড় ঘুরিয়ে দশ মিনিটের বিরতি দর্শকদের আবশ্যিক মস্তিস্কের শ্রম ঘটাবে। তরুণ দক্ষ অভিনেত্রী অভিনেতারাই টানটান করে রেখেছে গল্পের তীব্রতা। বিজয় সেনের নেগেটিভ চরিত্রে ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত পুরোপুরি পজিটিভ ভূমিকা পালন করেছেন। দীতি সাহা রিঙ্কু চরিত্রে একটিভ। দ্বিতীয়ার্ধে টানটান ভাবটা কমে গিয়ে গল্পের গতি অনেকটাই ধীর লয়ে চলে আসে। পারিবারিক সম্পর্ক ও অন্তঃস্থতা দেখাতে গিয়ে গল্পের প্রয়োজনে পরিচালককে এখানে অনেকটাই উপায়হীন হতে হয়েছে। তাই কোথাও যুক্ত হয়েছে কথার খেলে হাসির খোরাক আর যৌন দৃশ্যের আধিক্যতা। মীর, দর্শনা বণিক, অঞ্জনা বসু, অরুণিমা ঘোষ, অনামিকা চক্রবর্তী এবং অতি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অনিন্দ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতি নজর কাড়ে। অন্তিম পর্যায়ে দৌড় দৃশ্যটি অহেতুক দীর্ঘায়িত করা হয়েছে। রেইন মেশিনের ব্যবহার অত্যন্ত চোখে লাগে। বৃষ্টির ফোঁটা পড়ার সাথে জলের স্বাভাবিক ঢেউ খেলা মেলে না। 

কেউ যদি নাম না-ও দেখেন বা আগে থেকে না জানেন, গান ও বি.জি.এম শুনেই বোঝা যায় বিক্রম ঘোষের সুর সৃষ্টি। এতটাই স্বাভাবিক স্বকীয়তা যা মুভিটিকে অনবদ্য করে তুলেছে।

শাশ্বত শবর চট্টোপাধ্যায় এবার ‘গোয়েন্দা লালবাজার’-এর পাশাপাশি মনস্তাত্ত্বিক কাউন্সিলর-ও বটে, সম্পর্কের মূল্য তিনি যে দিতে জানেন। সেখানেই শুধু থ্রিলার থেকে মুভি টি উভয় ড্রামা এবং থ্রিলারে উন্নীত। প্রেমের সপ্তাহে তরুণ তরুণীরা বড় পর্দায় দেখেই আসতে পারেন এই উইকের বিগ রিলিজ ‘আসছে আবার শবর’। পাঁচ-এ দিগন্ত ব্লগের সাড়ে তিনটে ব্লগ পয়েন্ট দিলাম।


aschhe abar shabor

কেমন হল আন্তর্জাতিক শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ‘স্ক্রিন শর্ট’?

Facebook Comments

You Might Also Like